বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ১১:৪২ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
নির্মিত হলো ভালোবাসা দিবসে উপলক্ষে নাটক “প্রত্ননারী” হবিগঞ্জের চুনারুঘাট-সাটিয়াজুরী রাস্তার নির্মাণ কাজ পরিদর্শন: রৌমারীতে ” শীতার্তদের উষ্ণতা সরবরাহে সহানুভূতি যুব সংঘ’ চুনারুঘাট ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর মাঝে গরু বিতরণ ভবানীপুর ইউনিয়নের এ যাবতকালের সবচেয়ে বেশি ভোটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান মোঃশাহীনুর মল্লিক জীবন  লালপুরে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ এড়াতে প্রশাসনের ১৪৪ ধারা জারি “মোংলায় করোনা প্রতিরোধে ব্র্যাকের গণনাটক প্রদর্শন” শ্রীমঙ্গলে দরিদ্রদের মধ্যে শীতবস্ত্র, মাস্ক ও খাবার বিতরণ শ্রীমঙ্গলে বিষাক্ত পোটকা মাছ খেয়ে বউ শ্বাশুড়ির মৃত্যু হবিগঞ্জ শায়েস্তাগঞ্জ কলিমনগরে সড়ক দূর্ঘটনায় চিকিৎসকসহ নিহত দুই জন

হাইমচর জমি সংক্রান্ত বিরোধে হামলায় ৩ জন আহত

মোঃসবুজ হোসাইন, হাইমচর প্রতিনিধিঃ হাইমচর উপজলার ২নং আলগী উত্তর ইউনিয়নের কমলাপুর গ্রামে জমিন সংক্রান্ত বিরাধ নিরীহ পরিবারর উপর হামলায় একই পরিবারের ২জন আহত হয়েছেন। আহতরা চাঁদপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। ঘটনাকে কদ্র করে লুৎফুর রহমান গাজির স্ত্রী ফাহিমা বেগম বাদী হয়ে ভাশুর হাবিবুর রহমান গাজিসহ ৩ জনের বিরুদ্ধ হাইমচর থানায় অভিযাগ দায়ের করেন। অভিযাগ সুত্র জানাযায়, মৃত লুৎফর রহমান গাজির স্ত্রী ফাতমা বেগমের সাথে তার ভাশুর হাবিবুর রহমান গাজির দীর্ঘদিন যাবত জায়গা নিয়ে বিরাধ চলে আসছিল। গত ২৫ নভম্বর বুধবার সকাল ৮টায় হাবিবুর রহমান গাজি ফাতমা বেগমর জমিন থেকে জারপূর্বক মাটি কেটে তার পুকুরের পাড় বাঁধ নির্মান করেন। মাটি কেটে নেয়ার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করতে গেলে হাবিবুর রহমান গাজি, তার ছেলে মাস্তাফিজুর রহমান ও হাজরা বেগম দা’ ছেনি ও দশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে তাদর উপর হামলা করেন। তাদের হামলায় ফাতমা বেগম, তার ছেলে শাহাদাত হাসান ও ফরিদ আহম্মদ গাজি মারাত্মক ভাবে আহত হন। আহতদর কে স্থানীয় লাকজন হাইমচর উপজলা স্বাস্থকমপ্লক্স নিয়ে আসেন। তাদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় কর্তব্যরত ডা. তাদরক উনত চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর সদর হাসপাতাল প্রেরন করেন। আহতদের মধ্য ফাতমা বেগমর ছেলে শাহাদাত হাসান আশংকাজনক অবস্থায় রয়েছেন। ফাতমা বগম জানান, আমি বাড়িত না থাকায় হাবিবুর রহমান গাজি আমার নিজর জমিন থেকে মাটি কেটে নিয়ে যায়। আমি বাড়িতে এস জিজ্ঞাসা করায় তারা আমার উপর আতকির্ত ভাবে হামলা চালায়। তাদর হামলায় আমি ও আমার ছেলে সহ ৩ জন গুরুতর আহত হই। আমার স্বামী জীবিত না থাকার সুযোগে তারা আমাকে ও আমার ছেলে কে বিভিন সময় অহতুক ভাবে হয়রানি করে আসছে। আমার অনেক জমিন জোর পূর্বক ভাবে ভোগ করে আসছে তারা। আবার নতুন কর অবশিষ্ট জমিনটুকু দখল করার উদ্দশ্য মাটি কেটে নিয়েগেছে। বর্তমানে হাবিবুর রহমান গাজি আমাকে এবং আমার ছেলে কে মেরে পেলার হুমকি দিয়ে আসছে। আমি প্রশাসনের কাছ সুষ্ট বিচারের দাবী জানিয়ে অভিযাগ দায়ের করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন


      এ জাতীয় আরো খবর..